A huge collection of 3400+ free website templates, WP themes and more http://jartheme.com/ at the biggest community-driven free web design site.
Authors Posts by bangladaily

bangladaily

2381 POSTS 0 COMMENTS

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে ভারতের মত

0

ঢাকাঃ মিয়ানমারে জাতিগত নিধনের শিকার হয়ে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার পক্ষে মত দিয়েছে ভারত। ঢাকায় যৌথ পরামর্শক কমিশনের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বলেছেন: ঘরছাড়া মানুষগুলো রাখাইনে ফিরে গেলেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।

দু’দেশের মধ্যে চতুর্থ যৌথ পরামর্শক কমিশনের বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। বৈঠকে দু’দেশের মধ্যে চলমান প্রকল্প এবং অমীমাংসিত সমস্যাগুলোর সমাধান নিয়ে আলোচনা হয়।

সন্ত্রাসবাদ দমনে জিরো টলারেন্সের কথা পুনর্ব্যক্ত করার পাশাপাশি দু’দেশই নিরাপত্তা সহযোগিতা এবং সীমান্ত হত্যা শূন্যের কোটায় আনতে ঐক্যমত হয়েছে। এছাড়া ত্রিপুরা থেকে আরও ৩৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি নিশ্চিত করা ছাড়াও সড়ক, নৌ এবং রেলপথে যোগাযোগ বাড়াতে নতুন ৫টি রুট চালুর প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশ। নেপালকে সঙ্গে নিয়ে আপাতত ত্রিদেশীয় মোটরযোগাযোগ চালু করতেও সম্মত হয়েছে দুই দেশ।

বৈঠকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী তিস্তা চুক্তি নিয়ে আলোচনা হয়েছে জানালেও সে বিষয়ে কোন কথা বলেননি সুষমা।

প্রায় ঘণ্টাব্যাপী বৈঠকের পর দুই দেশের মধ্যে তেল-গ্যাস ক্রয়-বিক্রয় এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য সহায়ক কেন্দ্র স্থাপনে সমঝোতা স্মারক সই হয়। পরে সংবাদ সম্মেলনে দুই মন্ত্রী জানান বৈঠকের বিস্তারিত।

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ককে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হয় উল্লেখ করে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের সম্পর্ক কৌশলগত সম্পর্কের চেয়েও বেশি কিছু। এই সম্পর্ক সার্বভৌমত্ব, সমতা এবং বিশ্বাসের ওপর দাঁড়িয়ে।

রোববার দুপুরে একটি বিশেষ ফ্লাইটে নয়াদিল্লী থেকে ঢাকা পৌঁছালে সুষমা স্বরাজকে স্বাগত জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী। এয়ারবেইজের স্বাগত চা-পর্ব শেষ করে বিকালে দুই মন্ত্রী যোগ দেন দু’দেশের মধ্যে চতুর্থ যৌথ পরামর্শক কমিশনের বৈঠকে।

-বিবিএল

আজ জাতীয় নিরাপদ সড়ক চাই দিবস, থাকছে বিভিন্ন কর্মসূচী

0

ঢাকাঃ আজ ‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’। দীর্ঘ ২৪ বছর ধরে সড়ককে নিরাপদ করার লক্ষ্যে আন্দোলন করে আসছে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের নেতা চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন ও তাঁরই সৃষ্ট সংগঠন ’নিরাপদ সড়ক চাই’।

এর আগে বাংলাদেশে এ ধরনের কোন আন্দোলনের জন্য কোন সংগঠন সৃষ্টি হয়নি। নিরাপদ সড়ক চাই এর আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় প্রতি বছর ২২ অক্টোবর জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত হয়।

সংগঠনটির নেপথ্যে কাহিনীটি হৃদয়বিদারক। জানা গেছে, গত ২৪ বছর আগে চট্টগ্রামের অদূরে চন্দনাইশে বান্দরবানে স্বামী ইলিয়াস কাঞ্চনের কাছে যাবার পথে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় জাহানারা কাঞ্চন নিহত হন। রেখে যান অবুঝ দুটি শিশু সন্তান জয় ও ইমাকে। ইলিয়াস কাঞ্চন সে সময় ছবির স্যুটিংয়ে বান্দরবান অবস্থান করছিলেন। স্ত্রীর অকাল মৃত্যুতে দু’টি অবুঝ সন্তানকে বুকে নিয়ে শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করে ইলিয়াস কাঞ্চন নেমে আসেন পথে। পথ যেন হয় শান্তির, মৃত্যুর নয়- এই শ্লোগান নিয়ে গড়ে তুলেন একটি সামাজিক আন্দোলন ‘নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)’। আজ ২২ অক্টোবর জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস এবং মরহুমা জাহানারা কাঞ্চনের ২৪তম মৃত্যুবার্ষিকী, যাঁর অকাল মৃত্যুতে সড়ককে নিরাপদ করার এই সামাজিক আন্দোলনের জন্ম।

উল্লেখ্য, সরকার ২২ অক্টোবরকে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’ হিসেবে গত ৫ জুন ২০১৭ মন্ত্রী পরিষদের সভায় সর্বসম্মতিক্রমে স্বীকৃতি দিয়েছেন। এবছরই প্রথম দেশব্যাপী সরকারীভাবে ২২ অক্টোবর ’জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’ হিসেবে পালিত হবে।

জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ও জাহানারা কাঞ্চনের ২৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) প্রতিবারের ন্যায় এবারও ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সরকারের পাশাপাশি দেশব্যাপী ১১০টি শাখা সংগঠনের মাধ্যমে মাসব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচী পালন ইতিমদ্ধে শুরু করা হয়েছে। যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, সৌদি আরবসহ বিদেশে গঠিত বিভিন্ন শাখা সংগঠনসমুহ একই কর্মসূচী পালন করছে।

নিসচা কেন্দ্রীয় কমিটির মাসব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে নিসচা কেন্দ্রীয় কমিটি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন স্কুল ও কলেজে সড়ক নিরাপত্তাঃ ‘শিক্ষক-শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের করণীয়’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা, প্রথম আলো-নিসচা যৌথ আয়োজনে গোলটেবিল বৈঠক, রাজধানীর গুরুপ্তপূর্ণ ৩টি বাস টার্মিনাল- গাবতলী, মহাখালী ও সায়েদাবাদে চালক ও যাত্রীদের সচেতনতাবৃদ্ধিমূলক কর্মশালা, ২১ অক্টোবর প্রথম আলো-নিসচা যৌথ উদ্যোগে রোডক্রাশ এর ওপর উন্মুক্ত আলোচনা। ২২ অক্টোবর সরকারের উদ্যোগে আয়োজিত র‌্যালী ও বিভিন্ন কর্মসূচীতে রাজধানী ঢাকা ও জেলা শহরগুলিতে নিসচা’র সক্রিয় অংশ গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ২৩ অক্টোবর সকাল ১১ টায় বনানী কবরস্থানে মরহুমা জাহানারা কাঞ্চনের কবর জিয়ারত, বাদ আসর নিসচা কেন্দ্রীয় কার্য্যালয়ে মরহুমার আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া মহফিল। যারা বনানী কবরস্থানে যেতে আগ্রহী তাদেরকে ২৩ অক্টোবর সকাল ১১ টার পূর্বেই কবরস্থানের গেইটে উপস্থিত ও বিকেলে দোয়া মহফিলে অংশগ্রহনের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘সাবধানে চালাবো গাড়ি, নিরাপদে ফিরবো বাড়ি’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে একইভাবে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)-এর দেশব্যাপি বিদ্যমান ১১০টিরও বেশি শাখার উদ্যোগে স্থানীয়ভাবে র‌্যালী, মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া আমেরিকা, যুক্তরাজ্য, সৌদিআরবসহ বিদেশেও জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে কর্মসূচি পালিত হবে।

নিসচার গৃহীত সকল কর্মসূচিতে নিসচাকর্মীসহ সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত, তাদের পরিবারের সদস্যবৃন্দ, বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ অংশ নিবেন। সেইসাথে সারাদেশে ২২ অক্টোবর জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে গৃহীত কর্মসূচির পাশাপাশি ডকুমেন্টারীও প্রদর্শন করা হবে বলে জানা গেছে।

এ্যালোভেরা, স্নেক ও স্পাইডার প্লান্ট আপনাকে রাখবে বিশুদ্ধ

0

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ ঘুমের সমস্যা হচ্ছে? অনেকেরই রাতে ঘুম নিয়ে সমস্যা হয়। জানালা বন্ধ করে ঘুমাতে গেলে দম বন্ধ হয়ে আসে। আবার জানালা খুঁজে ঘুমানোর অভ্যাসও নেই। কিংবা সময় মতে শুয়ে পড়লেও এপাশ-ওপাশ করে রাত কেটে যায়।

এমন সমস্যা যাদের আছে তারা ভালো ঘুমের জন্য ঘরে রাখতে পারেন বিশেষ কিছু গাছ। ঘুম পাড়াতে সহায়ক এই গাছ গুলো ঘরের সৌন্দর্য বাড়ানোর পাশাপাশি পরিবেশও বিশুদ্ধ রাখবে। জেনে নিন গাছ গুলো সম্পর্কে।

এ্যালোভেরাঃ
ত্বকের যত্নে এ্যালোভেরার ব্যবহারের কথা তো সবার জানা। এবার এ্যালোভেরার আরেকটি গুনের কথা জেনে নিন। ঘুম পাড়াতে এ্যালোভেরা দারুণ কার্যকরী। এ্যালোভেরা গাছ রাতে অক্সিজেন ছাড়ে যা ঘুমে সহায়ক। ঘরে এ্যালোভেরা গাছ রাখা যায়। তেমন কোনো যত্ন ছাড়াই বেড়ে ওঠে এই গাছ। শুধু মাঝে মাঝে অল্প পানি এবং রোদ পেলেই এই গাছ তরতর করে বেড়ে ওঠে।

স্পাইডার প্ল্যান্টঃ
স্পাইডার প্ল্যান্ট বাতাসকে বিশুদ্ধ করে। বাতাসে উপস্থিত ক্যানসার সৃষ্টিকারী উপাদান দূর করতে ভূমিকা রাখে এই গাছ। এছাড়াও রুমের যেকোনো দুর্গন্ধ শুষে নিতে সহায়তা করে স্পাইডার প্ল্যান্ট। তাই ঘরে আলোবাতাস আছে এমন স্থানে স্পাইডার প্ল্যান্ট রাখলে ঘরের বাতাস বিশুদ্ধ থাকবে এবং ঘুম ভালো হবে।

স্নেক প্ল্যান্টঃ
বাতাস বিশুদ্ধ রাখতে স্নেক প্ল্যান্টের বিকল্প নেই। স্নেক প্ল্যান্টকে তাই এয়ার ফিল্টার বলা হয়ে থাকে। স্নেক প্ল্যান্ট রাতে অক্সিজেন নির্গত করে। ফলে রাতে ঘরের বাতাস বিশুদ্ধ এবং অক্সিজেন পূর্ণ রাখতে এই গাছ সহায়ক। গভীর ঘুম এবং ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য আজই লাগিয়ে ফেলুন স্নেক প্ল্যান্ট।

দিনের ঘুম ওজন ও বিষন্নতা বাড়ায়

0

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ দিনের বেলায় ঘুম বা ঘুমভাবের সঙ্গে ওজনাধিক্য ও বিষণ্নতার সম্পর্ক রয়েছে। নতুন একটি গবেষণায় বলা হয়, যদি সারারাত ভালো ঘুমের পরও দিনের বেলায় আপনার ঘুমভাব হয় তবে এটি ওজন এবং বিষন্নতা বাড়িয়ে দিতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের পেন স্টেট কলেজ অব মেডিসিনের সহকারী অধ্যাপক জুলিও ফারনান্দেজ মেনডোজা বলেন, ওজনাধিক্য এবং ওজন বাড়া দিনের বেলার ঘুম এবং ঘুমভাবের জন্য অনেকাংশে দায়ী। কেবল কম ঘুমের জন্যই ওজন বাড়ে না, নিয়মিত নিদ্রালুভাবের জন্যও ওজন বাড়ে।

জুলিও ফারনান্দেজ বলেন, এসব লোক রাতে ভালো করে ঘুমানোর পরও সারাদিন ক্লান্তবোধ করেন। তাই যদি আপনি ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে চান তবে অবশ্যই দিনের বেলার ঘুমভাব কাটাতে হবে। শরীরের ওজনের ওপর নির্ভর করে আপনার ঘুমানোর পরিমাণ নির্দিষ্ট করুন। প্রাথমিকভাবে বলা যায়, যাদের ওজন বেশি তারা সব সময়ই ক্লান্ত বোধ করেন। সহজভাবে বলা যায়, চর্বিকোষ, বিশেষ করে পেটের দিকে, এক ধরনের জিনিস তৈরি করে যাকে বলা হয় কাইটোকিনস। এটি ঘুমভাব তৈরি করে এবং ঘুমকে প্রভাবিত করে। গবেষকরা দিনের বেলায় যারা বেশি ঘুমান এমন এক হাজার ৩৯৫ জনের ওপর প্রায় সাড়ে সাত বছর ধরে গবেষণা করে এই ফল পেয়েছেন।

এদিকে স্বাস্থ্যবিষয়ক জার্নাল ওয়েব এমডি জানিয়েছে, যারা দিনের বেলা ঘুমান বা নিদ্রালু থাকেন, তারা অন্যদের তুলনায় তিন ভাগ বেশি বিষণ্নতা রোগে আক্রান্ত হন এবং ওজন যাদের বেশি এ সমস্যার কারণে তারা স্লিপ এপিনিয়ার সমস্যায় ভোগেন।

গবেষকরা দেখেছেন, এসব মানুষ হয়তো রাতে ঘুমাতে পারেন না বা মাঝরাতে কোনো কারণে জেগে যান। যার ফলে দিনের বেলায় নিদ্রাভাব হয়। যারা সারাদিন এমন ক্লান্ত বোধ করেন তাদের কর্মক্ষমতা কমে যায়, কাজে অমনোযোগী হয়ে পড়েন এবং আরো বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হয়। এর ফলে একপর্যায়ে বিষণ্নতা আরো বেড়ে যায়। তাই গবেষকদের মতে, ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে এবং বিষণ্নতাকে দূরে রাখতে সঠিক ঘুমের অভ্যাস তৈরি করা খুবই জরুরি।

ডি-৮ সদস্যভূক্তরা রোহিঙ্গাদের সহায়তার আশ্বাস দিলেন

0

বিডি ডেস্কঃ ডি-৮ সদস্যভুক্ত দেশগুলো রোহিঙ্গা সমস্যার টেকসই সমাধানে তাদের রাজনৈতিক ও মানবিক সহায়তার আশ্বাস দিয়েছে। এই সমস্যা বাংলাদেশে মানবিক সংকট সৃষ্টি করেছে।

গতকাল (শুক্রবার তুরস্কের ইস্তাম্বুলে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এর্দোগানের সভাপতিত্বে ডি-৮ ৯ম সম্মেলনে সদস্য দেশগুলো এই আশ্বাস দেয়। গতরাতে এখানে প্রাপ্ত এক বার্তায় একথা বলা হয়।

ডি-৮ (উন্নয়নশীল ৮টি দেশের গ্রুপ) সদস্যরা মায়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে রোহিঙ্গাদের পালিয়ে আসার ঘটনাকে জাতিগত নিধন হিসেবে চিহ্নিত করেন এবং জোরপূর্বক মায়ানমারের বাস্তুচ্যুত নাগরিকদের অধিকার নিশ্চিত করে মর্যাদায়পূর্ণভাবে প্রত্যাবাসনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
প্রেসিডেন্ট এর্দোগান জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য হৃদয় এবং সীমান্ত খুলে দেয়া এবং সমস্যার সমাধানে নেতৃত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন ও প্রচেষ্টা চালানোর জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করেন।

তিনি অন্তত তিনবার রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আবেগপূর্ণ বক্তব্য রাখেন এবং প্রতিবারই বাংলাদেশের প্রশংসনীয় ভূমিকা এবং তাদের আশ্রয় প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণের জন্য ভূয়সী প্রশংসা করেন।

মায়ানমারের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রেসিডেন্ট এর্দোগান রোহিঙ্গাদের জন্য এবং তাদের আশ্রয়দানকারী বাংলাদেশ বিশেষ করে ওআইসি এবং ইউএনকে সর্বোত্তম সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

তিনি বাংলাদেশের এই বিশাল ভার বহনে সকলকে শরিক হওয়ার আহ্বান জানান এবং রোহিঙ্গাদের জন্য অস্থায়ী হাসপাতাল ও হেলথ ক্যাম্পসহ আবাসন নির্মাণে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

মালয়েশিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী আহমেদ জাহিদ হামিদি সম্প্রতি তার বাংলাদেশ সফরের কথা স্মরণ করেন এবং এ সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সমর্থন আরো জোরদারের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।

অন্যান্যের মধ্যে ইরানের প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশের পদক্ষেপের প্রশংসা করেন এবং তাদের সমর্থন অব্যাহত রাখার আশ্বাস দেন। ডি-৮ সদস্যরা রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে কফি আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

ডি-৮ সম্মেলনে ৬ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।
প্রতিমন্ত্রী তার বক্তব্যে বর্তমান রোহিঙ্গা সংকটের সমাধানের ক্ষেত্রে সক্রিয় সমর্থনের জন্য ডি-৮ সদস্যদের প্রশংসা করেন।
তিনি বাস্তুচ্যুত অধিকারবঞ্চিত রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে বাংলাদেশের উদারনীতি সম্পর্কে ডি-৮ সদস্যদের অবহিত করেন এবং রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানের জন্য জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের গত অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থাপিত ৫ দফা ফর্মুলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
তিনি ডি-৮ সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে সমস্যার আশু সমাধানের জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সদস্য দেশগুলোর অব্যাহত সমর্থন চেয়েছেন।

ডি-৮ নবম সম্মেলনের থিম ছিল ‘এক্সপান্ডিং অপরচুনিটিস থ্রো কো-অপারেশন।’
১০০ কোটি মুসলিম জনসংখ্যা অধ্যুষিত ডি-৮ ভুক্ত ৮টি দেশের উন্নয়নের ধীরগতির কথা তুলে ধরে শাহরিয়ার আলম ডি-৮ দেশগুলোর অর্থনৈতিক সহযোগিতা জোরদারের বাস্তব ফলাফল নিয়ে আসতে সুনির্দিষ্ট উদ্যোগ ও প্রকল্প গ্রহণের নতুন যুগে প্রবেশের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

তিনি বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতার ওপর গুরুত্বারোপ করেন এবং ডি-৮ প্রিফারেন্সিয়াল ট্রেড এগ্রিমেন্ট (পিটিএ) পূর্ণ বাস্তবায়নের আহ্বান জানান।

সম্মেলনে ডি-৮ ইস্তাম্বুল ঘোষণা ২০১৭ এবং ডি-৮ ইস্তাম্বুল প্লান অব অ্যাকসন ২০১৭ গৃহীত হয়।
প্রতিমন্ত্রী আস্থা প্রকাশ করে বলেন, এই দু’টি ডকুমেন্ট বাস্তব ফলাফল ভিত্তিক প্রকল্প ও নীতিপদ্ধতি গ্রহণের মাধ্যমে ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা নির্ধারণ করবে।

প্রতিমন্ত্রী দু’টি টিভি ও রেডিওতে সাক্ষাতকার দেন, এতে তিনি আনাদুলু এজেন্সী ও টিআরটি ওয়াল্ডে রোহিঙ্গা সমস্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন, বাংলাদেশ-তুরস্ক সম্পর্ক এবং ডি-৮ সহযোগিতা ও সম্ভাবনা তুলে ধরেন।

সম্মেলনে তুরস্ক, নাইজেরিয়া, আজারবাইজান ও গিনির প্রেসিডেন্ট, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী, ইন্দোনেশিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট, মালয়েশিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী, ইরানের ফাস্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং মিশরের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বেশির ভাগ সদস্য দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা সম্মেলনে যোগ দেন।
তুরস্কের প্রেসিডেন্টের অটোমান প্রসাদে মধ্যাহ্ন ভোজ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সম্মেলন শেষ হয়।

স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে ১০-১৫ বছর ক্ষমতায় রাখতে হবেঃ জয়

0

ঢাকা ও সাভার থেকেঃ প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, বাংলাদেশকে উন্নত দেশের পর্যায়ে পৌঁছাতে হলে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে আরও ১০ থেকে ১৫ বছর ক্ষমতায় রাখতে হবে। আওয়ামী লীগ এদেশকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছে। তারাই দেশের উন্নতির জন্য কাজ করে।

শনিবার সাভারের শেখ হাসিনা জাতীয় যুব কেন্দ্রে আয়েজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। উন্নত দেশ মালয়েশিয়ার উদাহারণ টেনে জয় বলেন, সে দেশের স্বাধীনতার পক্ষের দলটি টানা চার বার ক্ষমতায় এসেছে। দেশকে উন্নতির শিখরে নিয়ে গেছে।

এদিকে স্বাধীনতার ৪৬ বছরে আওয়ামী লীগ মাত্র ষোল বছর ক্ষমতায় ছিল। এরমধ্যে গত আট বছর এক টানা দেশ পরিচালনা করছে। এরমধ্যেই বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০০৮ সালের আগে বিশ্ব বাংলাদেশকে চিনত জঙ্গিবাদের দেশ হিসেবে। দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন একটি দেশকে আওয়ামী লীগ এখন বিশ্বের সেরা ১১ অর্থনীতির দেশের কাতারে এনেছে। এই উন্নয়নের ধারা ধরে রাখতে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে ক্ষমতায় থাকতে হবে। কারণ যারা স্বাধীনতার বিরোধীতা করেছে তাদের দেশপ্রেম থাকে না।

এ অনুষ্ঠানে সিআরআইয়ের অন্যতম ট্রাস্টি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দীকী ববি, বিদ্যুৎ ও জ্বালানী প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, ক্রীড়া উপ-মন্ত্রী আরিফ খান জয় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক অঙ্গনসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিরাও উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্যবিষয়ক উপদেষ্টা তরুণদের উদ্দেশ্যে বলেন, তারাই জাতির ভবিষ্যৎ নেতা। স্বাধীনতার চেতনাকে তাদের বুকে ধারণ করতে হবে। এই চেতনাকে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার মাত্র চার বছরের মাথায় জাতির জনককে হত্যার মাধ্যমে এই দেশের অগ্রগতিকে থামিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিএনপি সরকারে অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশকে বিশ্বের কাছে গরীব দেশ হিসেবে তুলে ধরা হতো। বলা হতো গরীব না বললে সাহায্য মিলবে না। কিন্তু আওয়ামী লীগ দেশকে মধ্যম আয়ের দেশের কাতারে নিয়ে গেছে। এখন বাংলাদেশ অন্যের সাহায্য ছাড়া চলতে পারে।

সুশীল সমাজের সমালোচনা করে জয় বলেন, সুশীল সমাজের কিছু লোক আছে, যারা ছবি তুলে বিদেশে বাংলাদেশকে দেখিয়ে এনজিওর নামে টাকা আনতো। এটা ছিল তাদের ব্যবসা। তারা কি প্রতিবন্ধীদের জন্য কোনও কাজ করেছে? তারা কি মেয়েদের ফুটবল খেলা শিখিয়েছে? তারা তো টাকা বিদেশে পাচার করেছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ নিজের টাকায় পদ্মা সেতু করতে পারবে এটা কেউ কল্পনা করতে পারেনি। বিশ্বব্যাংকও এমনটা ভাবতে পারেনি। তারা ষড়যন্ত্র করেছিল। মনে করেছিল, বাংলাদেশ বসে যাবে। তাদের কাছে গিয়ে হাত-পা ধরবে। কিন্তু তারা বুঝতে পারেনি, যারা যুদ্ধ করে দেশের স্বাধীনতা অর্জন করতে পারে, তারা কারও কাছে মাথা নত করে না।

ইতিহাস বিকৃতির সমালোচনা করে জয় বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছে। খালেদা জিয়া তো বলেই ফেলেছেন, ত্রিশ লাখ শহীদ হয়নি। এই মিথ্যা প্রচারের সুযোগ যেন দেশে আর না আসে। মিথ্যা প্রচারের সুযোগ দেয়া যাবে না। কারণ যে জাতি নিজের শহীদদের ত্যাগের কথা ভুলে যায়, সেই জাতি এগুতে পারে না।

তিনি বলেন, বিশ্বের ধনী দেশগুলো যখন সিরিয়ার মানুষের পাশে দাঁড়াতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছে, তখন বাংলাদেশ ছোট হলেও রোহিঙ্গাদের জন্য দরজা খুলে দিয়েছে।

নিজেদের কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সমাজ পরিবর্তনের অবদান রাখছে এমন ৩০ তরুণ উদ্যোক্তাকে অনুষ্ঠানে পুরস্কৃত করেছে ইয়ং বাংলা। সেন্টার ফর রিসার্স এন্ড ইনফরমেশনস-সিআরই প্লাটফর্মটি সারা দেশ থেকে এই উদ্যোক্তাদের বাছাই করেছে। অনুষ্ঠানে তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন সজীব ওয়াজেদ জয়। সমাজ উন্নয়ন কার্যক্রম, সাংস্কৃতিক উন্নয়ন কার্যক্রম ও ক্রীড়া উন্নয়ন কার্যক্রম এই তিন বিভাগে তরুণদের নির্বাচিত করা হয়। ৩০ সংগঠনের মধ্যে সেরা হয়েছে ১০টি সংগঠন। সামাজিক উন্নয়ন কার্যক্রমের জন্য সেরা দশে এসেছে পাঁচটি সংগঠন। এগুলো হলো-যশোরের স্বপ্ন দেখো সমাজ কল্যাণ সংস্থা, বরিশালের ইয়ুথ সোসাইটি, কুমিল্লার দুর্বার ফাউন্ডেশন, সিলেটের কাকতাড়ূয়া ও ঠাকুরগাঁওয়ের আই পজিটিভ। সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সমাজ পরিবর্তনে ভূমিকা রাখার জন্য সেরা দশে স্থান পেয়েছে তিনটি সংগঠন। এগুলো হলো- রাঙামাটির জুমফুল থিয়েটার, সিলেটের থিয়েটার মুরারিচাঁদ ও বগুড়ার চৌপাশ নাট্যাঞ্চল। খেলাধুলায় অবদানের জন্য দুটি সংগঠন সেরা দশে এসেছে। এগুলো হলো- ঠাকুরগাঁওয়ের রাঙাটুঙ্গি ইউনাইটেড উইমেন ফুটবল একাডেমি ও গাজীপুরের হুইল চেয়ার ক্রিকেট। অনুষ্ঠানে সজিব ওয়াজেদ জয় এই দশ সংগঠনসহ সেরা ত্রিশের সবার হাতে একটি ল্যাপটপ, ক্রেস্ট ও স্মার্ট ফোন তুলে দেন। এর আগে গত শুক্রবার তাদের হাতে ইয়াং বাংলার পক্ষ থেকে সনদ তুলে দেওয়া হয়েছিল।

আয়োজকেরা জানান, গত সাড়ে চার মাসে সারাদেশে ৪৪টি জেলা ও ৩২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে উঠে আসে এক হাজার ৩০০ আবেদন। এরমধ্য থেকে ১০০টি প্রতিষ্ঠানকে প্রাথমিকভাবে বাছাই করা হয় এবং চূড়ান্ত পর্বের জন্য মনোনীত হয় ৫০টি সংগঠন। এখান থেকে সেরা ত্রিশটি নির্বাচিত করা হয়।

-বিবিআর

টাঙ্গাইল অভিমুখী মহাসড়কে ৭০ কি.মি. যানজট

0

ঢাকাঃ টানা বৃষ্টিপাত ও চলমান রাস্তা সংস্কারের জন্য টাঙ্গাইল অভিমুখী বিভিন্ন মহাসড়কে ৭০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে তীব্র যানজট দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু জাতীয় মহাসড়কে যাত্রীদের দুর্ভোগের পোহাতে হচ্ছে বেশি।

মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই হাইওয়ে থানার পুলিশ ও মির্জাপুর থানা পুলিশ যানজটের বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, গত চারদিন ধরে প্রবল বৃষ্টি থাকায় এবং মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বেশি হওয়ায় গত বৃহস্পতিবার থেকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট শুরু হয়।

তীব্র যানজট থাকার কারণে এ মহাসড়কের চলাচলকারী যাত্রীদের চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে। আজ শনিবার মহাসড়কের মির্জাপুর বাইপাস, দেওহাটা ও গোড়াই এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, যানজটে স্থবির হয়ে পড়েছে মহাসড়ক।

দেখা গেছে, মহাসড়কের চন্দ্র থেকে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গা পর্যন্ত মহাসড়ক জুড়েই এখন তীব্র যানজটে স্থবির। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে মির্জাপুর থেকে কালিয়াকৈরের চন্দ্রা মোড় এলাকা পর্যন্ত।

যানজটের কারণে উত্তরাঞ্চল ও টাঙ্গাইলের মধুপুর, ধনবাড়ি, জামালপুর ও শেরপুর জেলার অধিকাংশ যানবাহন বিকল্প মহাসড়ক হিসেবে সখীপুর-ভালুকা, টাঙ্গাইল- ময়মনসিংহ হয়ে ময়মনসিংহ-ঢাকা রাস্তায় চলাচল করছে বলে পরিবহন শ্রমিকরা জানিয়েছেন।

মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় এই যানজট এখন চন্দ্রা থেকে গাজীপুর ও চন্দ্রা থেকে বাইপাইল-নবীনগর ও বাইপাইল-আশুলিয়া-উত্তরা পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে।

গোড়াই হাইওয়ে থানার ওসি খলিলুর রহমান পাটোয়ারি বলেন, গত চারদিন ধরে বৃষ্টির কারণে ও চন্দ্রা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব প্রান্ত পর্যন্ত কাজ চলতে থাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

চন্দ্রা এলাকায় অভার ব্রিজ নির্মাণের ফলে দুই দিক থেকে আসা ও যাওয়ার পথে যানবাহন ঠিকমত পারাপার হতে পারছে না। একদিকে প্রচুর বৃষ্টি অপর দিকে তীব্র যানজটের কারণে যাত্রীদের চরম দুর্যোগের শিকার হতে হচ্ছে বলে হাইওয়ে ওসি স্বীকার করেছেন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম মিজানুল হক মিজানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, যানজট নিরসনের জন্য ট্রাফিক পুলিশ, থানা পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

সূত্রঃ বিভিন্ন গণমাধ্যম

অলরাউন্ডার সাকিব নয়, অলরাউন্ডার এখন হাফিজ

0

স্পের্টষ্ট ডেস্কঃ অলরাউন্ডার আর সাকিব নয়, অলরাউন্ডার এখন হাফিজ-হাসান। ওয়ানডে সিরিজের শুরু থেকেই দুর্দান্ত পাকিস্তানের সামনে অসহায় শ্রীলঙ্কা দল। এসময়ে পাকিস্তানের হয়ে দুরন্ত পারফর্ম করছেন মোহাম্মদ হাফিজ, হাসান আলী ও বাবর আজমরা।

এর কর্মফল হাতে হাতেই পেলেন তারা। পাকিস্তানকে সিরিজে ৪-০তে এগিয়ে দেওয়ার পর আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠেছেন হাফিজ ও হাসান।

শারজায় চতুর্থ একদিনের ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে পাকিস্তান। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কা মাত্র ১৭৩ রানেই অলআউট হয়ে যায়। জবাবে পাকিস্তান ১১ ওভার হাতে রেখে ৩ উইকেট হারিয়েই জয় তুলে নেয়। বাবর আজম ও শোয়েব মালিক উভয়ে ৬৯ রান করে করে দলকে সহজ জয় এনে দেন।

তবে ছোট টার্গেট তাড়া করতে নেমে দলীয় ১২ রানের ফিরে যান আগের ম্যাচে অভিষেকেই সেঞ্চুরি পাওয়া ইমাম-উল হক। দলীয় ৫৮ রানের মধ্যে এরপর মোহাম্মদ হাফিজ ও ফকর জামানকেও হারায় দলটি।

তাদের বিদায়ের পর বাবর আজম ও শোয়েব মালিকের জুটিতে ভর করে জয়ের দিকে অগ্রসর হতে থাকে।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২ রানে প্রথম উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। এরপর দলীয় রান একশো পার হওয়ার আগেই টপ অর্ডারের ৭ ব্যাটসম্যান একে একে সাজঘরে ফেরেন। লাহিরু থিরিমান্নে (৬২) ছাড়া আর কোনও ব্যাটসম্যান বড় ইনিংস খেলতে পারেননি।

পাকিস্তানের পক্ষে হাসান আলী তিনটি, শাদাব খান ও ইমাদ ওয়াসিম দুটি করে উইকেট নেন। ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান বাবর আজম। আগামী ২৩ অক্টোবর শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

সিরিজে দুর্দান্ত পারফর্ম করার পুরস্কার নগদ নগদই পেয়েছেন হাসান আলী ও হাফিজ। ওয়ানডে বোলিংয়ে প্রথমবারের মতো এক নম্বরে উঠেছেন। ২০১৭ সালে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকার করলেও তার এক নম্বরে ওঠা অনেককে অবাক করার মতো।

এ বছরের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট হওয়া হাসান সবচেয়ে কম ম্যাচে ৫০ উইকেট শিকারের রেকর্ড গড়েছেন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে ৫ উইকেট নিয়ে তিনি র‌্যাঙ্কিংয়ে ছয় ধাপ টপকে শীর্ষে ওঠেন।

ওয়ানডেতে এক নম্বর অলরাউন্ডারের শীর্ষে এতদিন ছিলেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান। সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে সাকিব সুবিধা করতে না পারলেও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভালো করছেন হাফিজ। আর এতে তিনি উঠে এসেছেন এক নম্বরে।

বোলিং নিয়ে সন্দেহের অভিযোগ ওঠার একদিন পর এই সংবাদ পেলেন হাফিজ। আর ২০১০ থেকে সবচেয়ে কম রান দেয়া বোলার মোহাম্মদ হাফিজ এ নিয়ে নয়বার সেরা অলরাউন্ডারের জায়গায় উঠলেন।

বৃষ্টি অবিরাম থাকবে, কর্মক্ষেত্রে পৌঁছাতে মহা ভোগান্তি

0

বিডি ডেস্কঃ বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের কারণে রাজধানীসহ সারাদেশে অবিরামভাবেই বৃষ্টিপাত চলছে। আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, আজ শনিবার বিকেল পর্যন্ত টানা বৃষ্টিপাত হবে। তবে আশা করে হচ্ছে, রাতে বৃষ্টি কমতে পারে।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ মো. আবদুল মান্নান বলেন, দেশের দক্ষিণ অঞ্চলের বৃষ্টিপাত রাত নাগাদ কমে আসবে। তবে উত্তরাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলের বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

গত দুই দিনের টানা বৃষ্টিতে রাজধানীর অলিগলি সহ বেশীরভাগ প্রধান সড়ক পানিতে ডুবে গেছে। আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্যমতে, গত বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে আজ শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ঢাকায় ১৯৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে খুলনায় ১৬৩, বরিশালে ১৮৬, রাজশাহীতে ৯২, ময়মনসিংহে ১০০ চট্টগ্রামে ১০ ও সিলেটে ৮ ও রংপুরে ৮৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মো. সারোয়ার আলম বলেন, নিম্নচাপের কারণে আজ শনিবারও বৃষ্টিপাত থাকতে পারে, কোথাও থেমে থেমে, তবে কোথাও টানা ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিও হতে পারে । শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৬০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত অভ্যন্তরীণ নৌবন্দরগুলোর জন্য ৩ নম্বর নৌ হুঁশিয়ারি সংকেত জারি করা ছিল।

আজ শনিবার রাজধানীতে মুষলধারায় বৃষ্টি হওয়ায় অনেকের কর্মক্ষেত্রে যেতে বেগ পেতে হয়। আবার অনেকেই এই অজুহাতে কর্মস্থলেই যাননি। আবার কেউ কেউ কর্মক্ষেত্রে যাওয়ার রাস্তাটাও ডুবে যাওয়ায় বাড়ি ফিরে গেছেন। অফিসে যাওয়ার পথে কল্যাণপুর থেকে পান্থপথের উদ্দেশে গ্লোবাল ব্যান্ডের এক কর্মকর্তা মামুন আল হোসাইন বিপ্লব, কথা হলো তার সাথে, অতি বৃষ্টির দিনে অফিসে যেতেই হবে। মোটরবাইকে চলেন তিনি। পথি মধ্যে ভিজে যেতে পারেন বলে একসেট কাপড়ও সঙ্গে নিয়ে নিয়েছেন।

মতিঝিল থেকে যাত্রাবাড়ী কর্মক্ষেত্রের উদ্দেশে রওনা ডা. রওশন আরা রনি। অন্তস্বত্বা ডা. রনি হাঁটু পানি ভেঙ্গে অফিসে যাচ্ছেন। উনি হাঁটু পর্যন্ত পায়ে পলিথিন পেচিয়ে পচা পানির হাত হতে রক্ষা পেতে চেষ্টা করেছেন।

অতি বৃষ্টির কারনে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বাসা থেকে কেউই বের হচ্ছেন না।

-বিবিএম

রোহিঙ্গা নিধনে নৃশংসতার কঠিন শাস্তি দাবি

0

বিডি ডেস্কঃ রোহিঙ্গা নিধনে নৃশংসতার কঠিন শাস্তি দাবি করেছেন জাতিসংঘের গণহত্যা রোধ বিষয়ক বিশেষ উপদেষ্টা আদামা দিয়েং এবং মিয়ানমারের উত্তর রাখাইন রাজ্যের পরিস্থিতি সুরক্ষায় দায়িত্বরত বিশেষ উপদেষ্টা ইভান সিমোনোভিচ।

বৃহস্পতিবার এক যৌথ বিবৃতিতে মিয়ানমার সরকারকে দ্রুত রাখাইন রাজ্যের চলমান সহিংসতা বন্ধের আহবান জানিয়েছেন। একইসঙ্গে সেখানে সংগঠিত নৃশংস অপরাধের বিষয়টি সামনে আনার আহবান জানিয়েছেন।

বেশ কয়েক বছর ধরে এই দুই উপদেষ্টা জাতিসংঘ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। তারা সতর্ক করে বলেছেন, রাখাইনে বর্বর ও নৃশংস অপরাধ সংগঠিত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

পরিদর্শন শেষে ঝুঁকির যে বিষয়গুলি তারা চিহ্নিত করেছেন এগুলোর মূল অনেক গভীরে। তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে রাখাইনে মুসলিম রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে বৈষম্যমূলক চর্চা অব্যাহত রয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বন্ধে পদক্ষেপ নিতে সরকারের ব্যর্থতা রয়েছে।
একইসঙ্গে রাখাইনে বিভিন্ন গোষ্ঠীর সহ-অবস্থান নিশ্চিত করতে যথাযথ শর্ত পূরণেও ব্যর্থতা রয়েছে সরকারের।

তারা বলেন, বিভিন্ন সময় অনেক কর্মকর্তার সতর্কতার পরও মিয়ানমার সরকার আন্তর্জাতিক আইনের আওতায় কাজ করতে ব্যর্থ হয়েছে। এখন তাদের প্রাথমিক দায়িত্ব হচ্ছে নৃশংস অপরাধ থেকে রোহিঙ্গাদের রক্ষা করা। এক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ও তাদের দায়িত্ব পালনে সমানভাবে ব্যর্থ হয়েছে।

দুই বিশেষ উপদেষ্টা গত ১৩ অক্টোবর আরিয়া ফর্মুলা বৈঠকে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশের প্রস্তাবিত সুপারিশকে স্বাগত জানিয়েছেন। তারা সহিংসতা বন্ধের পাশাপাশি মানবিক সহায়তাকর্মীদের প্রবেশাধিকার, রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা ও মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসনের আহবান জানিয়েছেন। একইসঙ্গে জাতিসংঘের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনকে প্রবেশ করতে দিতে আহবান জানিয়েছে।

রোহিঙ্গা বিষয়ে ইরাবতি প্রতিবেদনে আনান কমিশনের সুপারিশ

0

বিডি ডেস্কঃ জাতিসংঘের আন্ডার-সেক্রেটারি-জেনারেল(রাজনীতি) জেফ্রে ফেল্টম্যান মিয়ানমার সফরকালে রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের জন্য দেশটির সরকার ও সেনাবাহিনীর প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

মিয়ানমারে গত পাঁচ দিনের সফর শেষ করেন জেফ্রে ফেল্টম্যান। সফরকালে তিনি রাখাইন রাজ্যে দেশটির সেনাবাহিনীর পুঁড়িয়ে দেওয়া বেশ কিছু গ্রাম স্বচক্ষে দেখেন। একইসঙ্গে তিনি রাখাইনের রাজধানী সিত্তুয়ে অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুতদের ক্যাম্প পরিদর্শন করেন।

ব্যাংকক থেকে প্রকাশিত মিয়ানমারের নির্বাসিত সাংবাদিকদের পরিচালিত সংবাদমাধ্যম ইরাবতির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইরাবতির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফেল্টম্যান মিয়ানমার সরকার ও সেনাবাহিনীকে কফি আনানের নেতৃত্বাধীন কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়েছেন। মিয়ানমারের কার্যত সরকার প্রধান অং সান সু চি’র উদ্যোগে সাবেক জাতিসংঘের মহাসচিব কফি আনানের নেতৃত্বে রাখাইন কমিশন গঠন করা হয়েছিল। ফেল্টম্যান জানান, এই কমিশনের সুপারিশ বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবচেয়ে ভালো দিক-নির্দেশনা হতে পারে। কমিশনের সুপারিশের মধ্যে ছিল রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব প্রদান, দারিদ্র্যতা দূর, সীমান্ত নিরাপত্তা ও আরাকান ও মুসলিমদের মধ্যে সংলাপ। গত সপ্তাহে নিরাপত্তা পরিষদকে কফি আনান বলেন, আমাদের সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন করলে ওই অঞ্চলে শান্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

১৩ অক্টোবরের বৈঠকের পর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ও মিয়ানমারকে পরিস্থিতি ঠিক করার জন্য চাপ দিচ্ছে। কফি আনান সুপারিশ বাস্তবায়নের আহ্বান জানালেও ফেল্টম্যান বলেছেন, বিষয়টি খুবই কঠিন হবে। এজন্য মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও সরকারকে একসঙ্গে বসেই এটা সমাধান করতে হবে। আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের আহ্বান জানালেও রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে কোনো গঠনমূলক সিদ্ধান্ত ছাড়াই জাতিসংঘ কর্মকর্তার মিয়ানমার সফর শেষ হয়েছে। সফর শেষে এক বিবৃতিতে তিনি রাখাইনের গোষ্ঠীগুলোর মধ্যেকার অনাস্থা ও ভীতি দূর করতে জবাবদিহিতা, বৈষম্যহীন আইনের শাসন ও জননিরাপত্তার সমন্বিত উদ্যোগ জরুরি বলে মত দিয়েছেন।

ইরাবতির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি সপ্তাহেই বেশ কিছু পরীক্ষামূলক প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে রাখাইন ও রোহিঙ্গাদের যারা বাড়ি হারিয়েছেন তাদের পুনর্বাসন প্রকল্প। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, মংডু শহরের একটি মুসলিম প্রামে ন্যাশনাল ভেরিফিকেশন কার্ড (এনভিসি) প্রদান শুরু হয়েছে।

ষোড়শ সংশোধনী রায় পুনর্বিবেচনায় ১১ সদস্যের কমিটি

0

ঢাকাঃ বহুল আলোচিত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে দেওয়া রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন প্রস্তুত করতে অ্যাটর্নি জেনারেলের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের কমিটি কাজ করছে।

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম শুক্রবার জানান, ওই রায়ের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ হিসেবে রিভিউর প্রস্তুতির জন্য এ কমিটি কাজ করছে। কমিটিতে সুপ্রিম কোর্টের দুই অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল ও ৮ ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রয়েছেন।

১১ অক্টোবর রায়ের সত্যায়িত অনুলিপি তুলেছে রাষ্ট্রপক্ষ। রায় প্রদানকারী বিচারপতিদের স্বাক্ষরের পর গত ১ আগস্ট ষোড়শ সংশোধনী বাতিল নিয়ে আপিলের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করা হয়। এর আগে গত ৩ জুলাই প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগ সংক্ষিপ্ত রায় দেন।

উচ্চ আদালতের বিচারকদের অপসারণ ক্ষমতা সংসদের হাতে অর্পণ-সংক্রান্ত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীকে অবৈধ ও বাতিল ঘোষণা করে হাইকোর্টের ১৬৫ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায় গত বছর ১১ আগস্ট প্রকাশ করা হয়।

বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরীর নেতৃত্বে গঠিত বৃহত্তর বেঞ্চ গত বছর ৫ মে বিষয়টির ওপর সংক্ষিপ্ত রায় দেন। বেঞ্চের অন্য দুই সদস্য ছিলেন- বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল। রায়টি লিখেছেন বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী।

রায়ের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন বেঞ্চের অপর বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক। তবে বেঞ্চের কনিষ্ঠ বিচারপতি মো. আশরাফুল কামাল রায়ের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করে আরেকটি রায় দিয়েছেন।

এক রিটের পরিপ্রেক্ষিতে কেন ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- এ মর্মে রুল নিষ্পত্তি করে এ রায় দেন হাইকোর্ট।

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর আলোকে বিচারপতি অপসারণের জন্য একটি খসড়া আইন প্রস্তুত করা হয়েছে। অসদাচরণের জন্য সুপ্রিম কোর্টের কোনো বিচারকের বিরুদ্ধে তদন্ত ও তাকে অপসারণের প্রক্রিয়া নির্ধারণ করে ‘বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট বিচারক (তদন্ত) আইন’-এর খসড়া গত বছর ২৫ এপ্রিল মন্ত্রিসভা নীতিগত অনুমোদন দেয়।

সর্বোচ্চ আদালতের বিচারপতি অপসারণের ক্ষমতা সংসদের কাছে ফিরিয়ে নিতে ২০১৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী আনা হয়। বিলটি পাসের পর ওই বছরের ২২ সেপ্টেম্বর তা গেজেট আকারে প্রকাশিত হয়। পরে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী আইন-২০১৪-এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ওই বছরের ৫ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের নয় আইনজীবী হাইকোর্টে রিট আবেদনটি করেন।

সাড়ে ৩শ পোশাক কারখানায় গ্যাস সংকট

0

ঢাকাঃ সাড়ে ৩শ পোশাক কারখানায় গ্যাস সংকট। গাজীপুর, আশুলিয়া, সাভার, কাশিমপুর ও কোনাবাড়ি এলাকায় গ্যাস সংকট ভয়াবহ রূপ ধারণ করায় ওইসব এলাকায় সাড়ি ৩শ পোশাক কারখানায় উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।

শুক্রবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারের বিজিএমইএ ভবনে তৈরি পোশাক শিল্পের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরতে এক সংবাদ সম্মলনের আয়োজন করা হয়। ওই সংবাদ সম্মলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

যানজটে পোশাক খাত স্থবির হয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ঢাকায় ও এর আশেপাশে ভয়াবহ যানজট লেগে থাকে। ফলে ঢাকা থেকে গাজীপুর, আশুলিয়া যেতে তিন ঘন্টা আসতে তিন ঘন্টা মোট ছয় ঘন্টা সময় লেগে যায়। এ কারণে কারখানার মধ্যম পর্যায়ের কর্মকর্তারা কাজে যেতে চান না। এতে উৎপাদনে সমস্যা হচ্ছে। তাই ঢাকা থেকে গাজীপুর সড়কটি চার লেনে উন্নীত করার দাবি জানাচ্ছি।

পোশাক উৎপাদন ও রপ্তানি ত্বরান্বিত করতে বেশ কয়েকটি উদ্যোগ নেয়ায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, এখনো অনেক সমস্যা আছে। পণ্য পরিবহন সংকট কাটেনি। এই জন্য শাহাজালাল বিমান বন্দরেরর জন্য আমদানিকৃত দুটি ইডিএস মেশিন কার্যকর করা, বিমান বন্দরের ফ্রেইট হ্যান্ডেলিং ও স্টোরেজ ক্ষমতা বৃদ্ধিসহ আরো কিছু পদক্ষেপ নেয়া জরুরি।

বন্দরের সক্ষমতা বাড়ানোর তাগিদ এই পোশাক ব্যবসায়ী নেতা বলেন, প্রতিবছর চট্টগ্রাম বন্দরে পরিবহন বাড়ছে ১৭ থেকে ১৮ শতাংশ হারে। এই জন্য বন্দরের সক্ষমতা বাড়ানো দরকার ছিল কমপক্ষে ২০ শতাংশ। অথচ তা হয়নি।

গত ৪০ বছরে ৬০টি জেটি হওয়ার কথা থাকলেও হয়েছে ৭টি। পর্যাপ্ত জেটি না থাকায় জাহাজ জটের কারণে বছরে হাজার হাজার কোটি টাকা নষ্ট হচ্ছে। বন্দরে কন্টেইনার হ্যান্ডেলিং ব্যবস্থায় অব্যবস্থাপনার কারণে পোশাক শিল্পের প্রতিযোগী দেশগুলোর তুলনায় আমদানি করা কাঁচামাল খালাসে ১০ থেকে ১৫ দিন বেশি লাগছে। এর খেশারত দিতে হচ্ছে পোশাক শিল্পকে।

ভবিষ্যতে দেশীয় পোশাক শিল্পের বাজার ভারত নিয়ে যেতে পারে এমন আশংকা প্রকাশ করে বিজিএমইএর সভাপতি বলেন, প্রতি বছর আমাদের গার্মেন্টস সেক্টরে গড়ে ১৩ শতাংশের উপর প্রবৃদ্ধি থাকতো।কিন্তু গত বছরে প্রবৃদ্ধি হয়েছে মাত্র শূন্য দশমিক ২ শতাংশ। অথচ ভারতে গড় প্রবৃদ্ধি ১৪ শতাংশের উপরে। তাহলে আমরা কিভাবে তাদের সঙ্গে প্রতিযোগীতা করে টিকে থাকবো? ভবিষ্যতে ভারত বাংলাদেশের পোশাকের বাজার নিয়ে যেতে পারে।

তিনি বলেন, ভারত বিভিন্নভাবে তাদের পোশাক খাতকে সহযোগিতা করছে। কে কত বেশি সুবিধা দিতে পারে তা নিয়ে রাজ্যগুলো একে অপরের সাথে প্রতিযোগিতা করছে। এজন্যই বারবার বলেছি, বাংলাদেশে পোশাক খাতকে এগিয়ে নিতে আরো সহযোগিতা করুন।

-ওআরবি

সারাদিনের বৃষ্টি ৭৬ মিলিমিটার! ঢাকায় জনজীবন বিপর্যস্ত

0

ঢাকাঃ সারাদিনের বৃষ্টি ৭৬ মিলিমিটার!শুক্রবারে স্থল নিম্নচাপের প্রভাবে সারাদেশে থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত রাজধানীতে ৭৬ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে জানা গেছে, স্থল নিম্নচাপের প্রভাবে শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত রাজধানীতে ৭৬ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। এর আগের ১২ ঘণ্টায় ১৯ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়। সব মিলে গত ২৪ ঘণ্টা ৯৫ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে।

এদিকে শুক্রবার দিনভর বৃষ্টিতে রাজধানীর বহু এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েন নগরবাসী। তবে ছুটির দিন হওয়ায় রাস্তাঘাট ছিল অনেকটাই ফাঁকা। অন্য সময়ের মত তীব্র যানজটে পড়তে হয়নি রাজধানীবাসীকে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, উপকূলীয় উড়িষ্যা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত স্থল নিম্নচাপটি উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে শুক্রবার বেলা ১২টায় গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চল ও উড়িষ্যা এলাকায় অবস্থান করছিল।

এটি আরও উত্তর/উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে যেতে পারে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ু চাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে এবং গভীর সঞ্চালণশীল মেঘমালা তৈরি অব্যাহত রয়েছে।

এই নিম্নচাপের প্রভাবে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রাখা হয়েছে।

নিম্নচাপের প্রভাবে উপকূলীয় জেলা কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, ভোলা, বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনা, ঝালকাঠী, পিরোজপুর, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহের নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ১-২ ফুট অধিক উচ্চতার বায়ু তাড়িত জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে।

এদিকে বৈরি আবহাওয়ার কারণে শুক্রবার বেলা ১২টা থেকে রাজধানী ঢাকার সঙ্গে তিন রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রেখেছে বিআইডব্লিউটিএ। এ ছাড়া পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌ-রুটেও লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিএর সদরঘাটে দায়িত্বরত নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের যুগ্ম পরিচালক শাহেদ রেজা জানান, নিম্নচাপ ও ৩ নম্বর সংকেত থাকায় সকাল থেকেই বাতাসসহ বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

এর ফলে নদীতে প্রচণ্ড ঢেউয়ের সৃষ্টি হয়েছে। দুর্ঘটনা এড়াতে দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে ঢাকা-হাতিয়া, ঢাকা- বেতুয়া ও ঢাকা- রাঙাবালী নৌ-রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এ ছাড়া পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌ-রুটেওলঞ্চ চলাচল বন্ধ রাখা হয়।

তিনি আরও জানান, সকাল থেকে ৬৫ ফিটের নিচের লঞ্চগুলো বন্ধ রাখা হয়। পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত এ সব রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকবে।

বশেমুরবিপ্রবতে প্রথম বর্ষে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু

0

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের এ,বি,সি,ডি, ই, এফ,জি এবং এইচ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ইংরেজি ১০/১১/২০১৭ থেকে ১৮/১১/২০১৭ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে। আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে গত ০৪/১০/১৭ থেকে এবং শেষ হবে আগামী ৩১/১০/১৭ তারিখে।

বশেমুরবিপ্রবির জনসংযোগ কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুল আলমের তথ্যমতে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে বশেমুরবিপ্রবিতে যুক্ত হয়েছে আরও আটটি নতুন বিভাগ। নতুন আট বিভাগ যুক্ত হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন মোট বিভাগের সংখ্যা ৩১ টি। আটটি ইউনিটের অধীনে ৩১ বিভাগে সর্বমোট ২,৯০৬ জন (বিদেশি শিক্ষার্থী ও কোটাসহ) শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

নতুন বিভাগগুলো হলো সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, ফিশারিজ ও মেরিন বায়োসাইন্স, এনিমেল হাসবেন্ডারি এন্ড ভেটেরনারি সাইন্স, সাইকোলজি, ফিনান্স এন্ড ব্যাংকিং (বিবিএ), টুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট (বিবিএ), রাষ্ট্রবিজ্ঞান ও ইতিহাস।

ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।

প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসসহ গোপালগঞ্জ শহরের ৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, সরকারি বঙ্গবন্ধু কলেজ, শেখ ফজিলাতুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, শেখ হাসিনা স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং গোপালগঞ্জ সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ।

ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি:

১০ নভেম্বর শুক্রবার ডি এবং ই ইউনিটের পরীক্ষা, ১১ নভেম্বর শনিবার এফ এবং জি ইউনিটের পরীক্ষা, ১৭ নভেম্বর শুক্রবার এ এবং বি ইউনিটের পরীক্ষা ও ১৮ নভেম্বর শনিবার সি এবং এইচ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য, এবারে মুল আসনের অতিরিক্ত হিসেবে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ৫ শতাংশ, প্রতিবন্ধী কোটায় ১ শতাংশ, খেলাধুলা/সাংস্কৃতিক কোটায় ১ শতাংশ, ক্ষুদ্র ণৃ-গোষ্ঠী কোটায় ১ শতাংশ এবং পোষ্য কোটায় ১ শতাংশ শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এছাড়া ৫০টি আসন বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য সংরক্ষিত রয়েছে

এছাড়া ভর্তি পরীক্ষার আসন বিন্যাস সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.bsmrstu.edu.bd থেকে জানা যাবে।

পেপ্যালের কার্যক্রম শুরু

0

অর্থনৈতিক ডেস্কঃ বিশ্বব্যাপী অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম পেপ্যাল বাংলাদেশে চালু হয়েছে। এর ফলে এখন থেকে ফ্রিল্যান্স রেমিটেন্স উপার্জনকারীরা বিদেশ থেকে ৪০ মিনিটের মধ্যে তাদের পেমেন্ট গ্রহণ করতে পারবেন।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয় গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে পেপ্যালর কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এই সেবার মাধ্যমে প্রবাসী বাংলাদেশীরাও বৈধ চ্যানেলে দেশে রেমিটেন্স পাঠানোর সুবিধা পাবে।

অনুষ্ঠানে জয় বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানকারী প্রায় ১ কোটি ১৮ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশী গত বছরে ১৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রেমিটেন্স বাংলাদেশে পাঠিয়েছে। বৈধ চ্যানেলের মাধ্যমে দেশে রেমিটেন্স পাঠানোর সুযোগ সৃষ্টি হওয়ায় এখন দেশে রেমিটেন্স প্রবাহ আরো বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। জয় জুম সার্ভিসের প্রশংসা করেন। এতে প্রবাসী বাংলাদেশীদের প্রত্যেকেই খুব আল্প সময়ের মধ্যে দেশে রেমিটেন্স পাঠাতে সক্ষম হবে।

জুম কর্মকর্তারা বলেন, রেমিটেন্সের পরিমাণ এক হাজার মার্কিন ডলারের বেশি হলে ফ্রিল্যান্সাররা বিনা মূল্যে এই সেবাটি ব্যবহার করতে পারবে। তবে এক হাজার মার্কিন ডলারের কম হলে সার্ভিস চার্জ হিসাবে ৫ ডলার পরিশোধ করতে হবে।

জুম সার্ভিসের আওতায় যে কেউ এক সময়ে ১০ হাজার ডলার পাঠাতে পারবেন এবং গ্রাহকরা সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক এবং সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকসহ ৯টি বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে এই সেবা নিতে পারবেন।

জয় বলেন, আইসিটি ডিভিশন বিদেশের আউট সোর্সিং সুবিধা লুফে নিতে ১৩ হাজার তরুণকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে। তাদের অনেকেই এখন উপার্জন করছে। তিনি বলেন, সরকার দু’এক বছরের মধ্যে ইন্টারনেট খরচ কমিয়ে দেয়ার এবং ফ্রিল্যান্সারের দাবি অনুযায়ি উচ্চ গতিসম্পন্ন ও নির্ভরযোগ্য ইন্টারনেট সংযোগ প্রদানের পরিকল্পনা করেছে।

জয় বলেন, ২০০৮ সালে ১ এমবিপিএস ইন্টারনেটের মূল্য ছিল ৮০ হাজার টাকা। আমি বলেছিলাম এটি কমিয়ে ৮০০ টাকা করা হবে এবং আমি সেটি করেছি। বর্তমানে এর রেট হচ্ছে ৬০০ টাকা। তিনি বলেন, সরকার ইন্টারনেট ও সেল ফোন অপারেটরদের অধিকাংশ সমস্যার সমাধান করে দিয়েছে। এ বছরের মধ্যে ৪জি সার্ভিস চালু করা হবে। এক বছরের মধ্যে অন্তত নগর এলাকায় ৪জি সার্ভিস চালু করার দাবি ছিল মোবাইল অপারেটরদের। তাদের সমস্যা ছিল ২৪টি। আমি ইতোমধ্যেই ২২টির সমাধান করে দিয়েছি।

জয় বলেন, আইসিটি ডিভিশন অন লাইন সিস্টেম সব ধরনের অর্থনৈতিক লেনদেন বাংলাদেশ ব্যাংকের তত্ত্বাবধানে রাষ্ট্রপরিচালিত একটি অনলাইন সিস্টেমের অধীনে নিয়ে আসার উদ্যোগ নিয়েছে।

অনুষ্ঠানে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ইমরান আহমেদ, বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ফজলে কবির এবং আইসিটি ডিভিশনের সচিব সুবির কিশোর চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

ওবামার প্রেমপত্র প্রকাশ

0

বিডি ডেস্কঃ বারাক ওবামার প্রেমপত্র প্রকাশ করা হলো। ১৯৮২ থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত ওবামা ৯টি চিঠি লিখেছিলেন তার তৎকালীন প্রেমিকা আলেক্সান্দ্রা ম্যাকনিয়ার কাছে।

চিঠিগুলো যখন লিখেছিলেন তখন কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটি, ইন্দোনেশিয়া এবং সর্বশেষ বিজনেস ইন্টারন্যাশনাল করপোরেশনে ছিলেন ওবামা।

চিঠিতে তিনি রাজনীতিতে আসার আগে মানসিক দোলাচলে ভুগছিলেন বলে জানা যায়। রাজনীতির হাতেখড়ি হওয়ার সময় কেমন মানসিক অবস্থা ছিল সেইসব ধরা পড়েছে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টের এসব চিঠিতে।

৩০ পৃষ্ঠার চিঠি থেকে জানা যায়, পৃথিবীতে নিজের ভূমিকা, জাতিগত পরিচয়, নিজ সম্প্রদায়ের মানুষের আর্থিক উন্নতি হবে কিনা এবং প্রেমিকার সঙ্গে তার বিভিন্ন বিষয়ে মতবিরোধ ছিল যা নিয়ে ওবামা চিন্তিত ছিলেন।

২০১৪ সালেই চিঠিগুলো হাতে পায় আটলান্টার ইমরি বিশ্ববিদ্যালয়। চিঠির অংশ বিশেষ প্রকাশিত হয়েছে ওবামাকে নিয়ে লেখা একটি বইয়ে।

তবে এই প্রথম সব চিঠি প্রকাশ্যে আনা হলো। গবেষকরা এই চিঠি দেখতে পারবেন। ১৯৮৪ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার শিক্ষা জীবন শেষ করে কলম্বিয়া চলে যান ওবামা।

ইমরি ইউনিভার্সিটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, চিঠিতে ১৯৮০ সালেই ওবামার মধ্যে হোয়াইট হাউসে যাওয়ার একটা চিন্তার কথা জানা যায়।

উপজেলা চেয়ারম্যানের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

0

ঢাকাঃ শেরপুরের নকলা উপজেলা চেয়ারম্যান মাহাবুব আলী চৌধুরী ওরফে মনির চৌধুরীর (৬৫) লাশ উদ্ধার হয়েছে। নিজ বসতঘরে সিলিং ফ্যানের সাথে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে পুলিশে খবর দেয় পরিবারের সদস্যরা।

শুক্রবার সকল আটটার দিকে শহরের কুর্শা এলাকার বাসভবন থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নকলা থানার ওসি খাঁন আব্দুল হালিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে উপজেলা চেয়ারম্যান আত্মহতা করে থাকতে পারেন। তবে কেন, কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে, তাত্ক্ষণিকভাবে তা জানাতে পারেননি।

মাহবুব আলী চৌধুরী বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নকলা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছিলেন। তিঁনি ছোট স্ত্রীকে নিয়ে নকলা শহরের বাসভবনে থাকতেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়।

-বিবিএম

চট্টগ্রাম র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধ’, নিহত ১

0

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে নগরীর সদরঘাট থানার আইস ফ্যাক্টরি রোড এলাকায় এই ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

র‌্যাব বলছে, নিহত মোহাম্মদ ফারুক (৪২) একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে ১৮টি মামলা রয়েছে।

চট্টগ্রাম র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক এএসপি মিমতানুর রহমান জানান, মাদক ব্যবসায়ীদের অবস্থান জানতে পেরে রাতে র‌্যাবের একটি দল আইস ফ্যাক্টরি রোডে অভিযান চালায়।

তিনি জানান, র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি চালালে আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়। এক পর্যায়ে গুলি থামার পর সেখানে ফারুকের গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়।

ঘটনাস্থলে একটি ব্যাগে দুই লাখ ইয়াবা, দুটি বিদেশি পিস্তল ও একটি ওয়ান শুটারগান পাওয়া গেছে বলেও জানান এএসপি মিমতানুর।

’মালালা ইউসুফজাই ইন ইউকে’ এ কি সত্যিই মালালা!

0

এডিট ডেস্কঃ সোনালী স্কার্ফে আধা ঢাকা মাথা। পরনে জ্যাকেট আর জিন্স। গোড়ালি পর্যন্ত হাই হিলের বুটজোড়া। ব্যস্ত রাস্তায় হেঁটে যাচ্ছেন এক তরুণী। ছবির নিচে ক্যাপশন, ‘মালালা ইউসুফজাই ইন ইউকে।’

পাকিস্তানের একটি ওয়েবসাইটে এই ছবি প্রকাশিত হওয়া মাত্র ট্রোলড করা হচ্ছে সবচেয়ে কম বয়সে শান্তিতে নোবেল পুরস্কারজয়ী মালালাকে। চিরাচরিত সালোয়ার কামিজ ছেড়ে জিন্‌স পরার ‘অপরাধে’ নারী শিক্ষা অধিকার কর্মী মালালাকে কাঠগড়ায় তুলেছেন নেটিজেনদের একাংশ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ছবির ওই তরুণী আদৌ মালালা কি না তা অবশ্য নিশ্চিত করে জানা যায়নি। কিন্তু, তা সত্ত্বেও মালালাকে নিয়ে কটাক্ষ করতে ছাড়ছেন না অনেকে। ছবিটি নিয়ে এরই মধ্যে ১১ হাজারেরও বেশি প্রতিক্রিয়া মিলেছে। দু’হাজারেরও বেশি নেটিজেন তা নিয়ে মন্তব্য করেছেন।

কেউ কেউ ব্যঙ্গও করেছেন, আবদুল্লা শাহ নামে এমনই একজনের মন্তব্য, “এখনও নয়, এর আগেও— কখনই লজ্জাবোধ ছিল না তার।”

তবে কটাক্ষ-সমালোচনার পাশাপাশি মালালার সমর্থনেও মুখ খুলেছেন অনেকে। আয়াজ শোরো লিখেছেন, “এটা তো খুব সাধারণ একটা পোশাক… এমনকী মাথায় স্কার্ফও রয়েছে। আমি এতে খারাপ কিছু দেখছি না।”

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

বাংলাদেশে পেপ্যাল সেবার শুভ সূচনা

0

তত্যপ্রযুক্তি ডেস্কঃ বহুল প্রত্যাশিত অনলাইন লেনদেনের আর্ন্তজাতিক মাধ্যম পেপ্যাল জুম সেবা অবশেষে চালু হলো বাংরাদেশে। আজ প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বঙ্গবন্ধু আর্ন্তজাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এই সেবার শুভ উদ্ভোধন ঘোষণা করলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তথ্য উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, এতদিন ধরে বিভিন্ন চ্যানেলে তাদের কষ্টার্জিত অর্থ দেশে পাঠাচ্ছেন। এতে যেমন পয়সা বেশী খরচ হচ্ছে তেমন বিড়ম্বনার স্বীকারও হচ্ছেন। পেপ্যালের জুম সেবা চালুর মাধ্যমে এখন থেকে তাঁরা সহজেই পেপ্যালের অ্যাকাউন্ট থেকে দুই ঘণ্টার মধ্যে অর্থ দেশে পাঠাতে পারবেন। শুধু ফ্রিল্যান্সাররা নন, প্রবাসীরাও এই সেবা ব্যবহার করতে পারবেন।

সজীব আরও বলেন, ২০১৮ সালের মধ্যে দেশের সব ইউনিয়নকে ‘ইনফো সরকার ৩’ প্রকল্পের আওতায় ফিক্সড ব্রডব্যান্ডের মধ্যে আনা হবে। এ ছাড়া ইন্টারনেটের দাম প্রতিবছর কমানোর আশ্বাস এবং চলতি বছরের মধ্যে ফোর-জি চালুর ঘোষণাও দেন তিনি।

আর তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, ফ্রিল্যান্সিংয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। পেপ্যাল সার্ভিসের মাধ্যমে বিদেশ থেকে অর্থ আনার সুযোগ সৃষ্টি করা ফ্রিল্যান্সারদের দীর্ঘদিনের দাবি। এই সেবা উদ্বোধনের মাধ্যমে সেই দাবি পূরণ হলো।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও আপাতত পেপ্যালের জুম সার্ভিসের মাধ্যমে আমাদের ফ্রিল্যান্সার ও প্রবাসী বাংলাদেশিরা অর্থ পাঠাতে (ইনবাউন্ড) পারবেন। তবে দেশ থেকে অর্থ বিদেশে পাঠানো যাবে না। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটিবিষয়ক উপদেষ্টার নেতৃত্বে পর্যায়ক্রমে আউটবাউন্ডসহ পরিপূর্ণ পেপ্যাল সেবা চালু করতে আমাদের উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।’

সারা বিশ্বের ২০৩টি দেশে পেপ্যাল সেবা চালু আছে। এর মধ্যে ২৯টি দেশে পূর্ণাঙ্গ সেবা ও ১০৩টি দেশে ইনবাউন্ড সেবা চালু আছে। জুম সেবা চালুর ফলে পেপ্যালের অ্যাকাউন্টধারীরা আগে বাংলাদেশে টাকা পাঠাতে পারতেন না। তবে এখন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের পেপ্যাল অ্যাকাউন্টধারীরা তাঁদের পেপ্যাল ওয়ালেট ব্যবহার করে প্রতিবার সর্বোচ্চ ১০ হাজার ডলার পাঠাতে পারবেন।

প্রতি লেনদেনে এক হাজার ডলার পর্যন্ত পাঠাতে ৪ দশমিক ৯৯ ডলার ফি লাগবে। আর এক হাজার ডলারের বেশি অর্থ পাঠাতে কোনো ফি লাগবে না।

সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, সিটি ব্যাংক ও ইসলামী ব্যাংকে প্রাথমিকভাবে এই সেবা চালু হচ্ছে।

-পিএলআর

দুই মামলায় জামিনে মুক্ত খালেদা জিয়া

0

ঢাকাঃ জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির দুই মামলায় আত্মসমর্পণ করে জামিন পেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।

বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসায় স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ আদালত বেগম জিয়ার জামিন মঞ্জুর করেন। আদালত এক লক্ষ টাকার বেল বন্ড ও বিদেশে যাওয়ার সময় আদালতের অনুমতি নেওয়ার শর্তে তাকে জামিন দেন।

সকাল ১১ টা ১৫ মিনিটে পুরান ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসায় স্থাপিত বিশেষ আদালতে আত্মসমর্পণ করেন খালেদা জিয়া। তার সঙ্গে বিএনপি মহাসচি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জাতীয় স্থায়ী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। এছাড়া সিনিয়র আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপি চেয়ারপার্সন গুলশানের নিজ বাসভবন ‘ফিরোজা’ থেকে সকাল সাড়ে দশটায় আদালতের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। আদালতে তাকে স্বাগত জানাতে বিপুল নেতাকর্মীরা জড়ো হন। এসময় আদালত প্রাঙ্গনে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়।

-বিবিআর

খালেদা জিয়ার আত্নসমর্পণ, জামিনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আপত্তি

0

ঢাকাঃ জিয়া চ্যারেটেবল ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিশেষ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চেয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি জামিনের আবেদনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন এবং পরে জামিন আবেদন করেন।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বাসা থেকে আদালতের উদ্দেশে বের হন। চিকিৎসা শেষে তিন মাস পর গতকাল বুধবার বিকেলে তিনি লন্ডন থেকে ঢাকায় ফিরেছেন।

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে যে তিনটি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে সেগুলো হলো, বাসে পেট্রলবোমা হামলার, মানহানির মামলা, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলা।

গত ৯ অক্টোবর বাসে পেট্রলবোমা হামলায় বিএনপির চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন কুমিল্লার জেলা ও দায়রা জজ জেসমিন বেগম। এ ছাড়া ১২ অক্টোবর মানহানির মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ঢাকায় দুটি আদালত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। আর মানহানির মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম নূর নবী এবং জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিশেষ আদালতের বিচারক ড. আক্তারুজ্জামান এ দুটি পরোয়ানা জারি করেন।

বিএনপি’র উচ্চ পর্যায়ের নেতারা মনে করে, রাজনৈতিক কারণেই খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। যদিও সরকার বলেছে, গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি আদালতের ব্যাপার।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান এবং খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, দুপুর ১২টার দিকে খালেদা জিয়া বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করবেন। পরে সেখান থেকে তিনি জজ আদালতে যাবেন।

আজ বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে মামলা দুটির যুক্তি উপস্থাপনের দিন ধার্য রয়েছে। দুই মামলারই সাক্ষ্যগ্রহণ সমাপ্ত হয়েছে।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক হারুন-অর-রশিদ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক বাসুদেব রায়।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী (পলাতক), হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএর নৌনিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

এ ছাড়া জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় মামলা করে দুদক।

২০১০ সালের ৫ আগস্ট খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন দুদকের উপপরিচালক হারুন আর রশিদ। ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ খালেদা জিয়াসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক বাসুদেব রায়।

মামলায় খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান ছাড়া অন্য আসামিরা হলেন মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান।

-ওএমআর

আজ আদালতে হাজির হবেন খালেদা জিয়া

0

ঢাকাঃ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বৃহস্পতিবার আদালতে যেতে পারেন বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার রাতে বিএনপি চেয়াপারসন খালেদা জিয়া গুলশানের বাসায় পৌঁছানোর পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল এ মন্তব্য করেন।

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থাকার বিষয়ে ফখরুল বলেন, আশা করছি তিনি কালকে কোর্টে যাবেন।

বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়াও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল দুর্নীতির দুই মামলায় আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করতে আদালতে উপস্থিত হবেন বেগম খালেদা জিয়া।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বকশীবাজারে আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে মামলা দুটির যুক্তি উপস্থাপনের দিন ধার্য রয়েছে। দুই মামলারই সাক্ষ্যগ্রহণ সমাপ্ত হয়েছে।

১২ অক্টোবর তিনি আদালতে হাজির না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে দুই মামলায়ই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ আদালত।

-পিএলবি

রোহিঙ্গা ইস্যুতে আইপিইউতে বাংলাদেশ ভোট পেল ১০২৭, মিয়ানমার ৩৭

0

আর্ন্তজাতিক ডেস্কঃ রাশিয়ায় ১৩৭তম (আইপিইউ) সম্মেলনে মিয়ানমারের সংখ্যালঘু মুসলমানদের ওপর চলমান গণহত্যার বিষয়টি ইমারজেন্সি বিষয় হিসেবে গৃহীত হয়েছে। যেখানে এক ভোটাভুটিতে মিয়ানমারের চাইতে যোজন যোজন বেশি সমর্থন পেয়েছে বাংলাদেশ।

রাশিয়ার স্থানীয় সময় মঙ্গলবার বিকেলে সেন্ট পিটার্সবার্গে চলমান আইপিইউ সম্মেলনের সাধারণ সভায় রোহিঙ্গা ইস্যুটি বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে নির্বাচিত হয়। এর আগে আইপিইউ সম্মেলনে ইমারজেন্সি আইটেম হিসেবে বাংলাদেশের প্রস্তাবিত রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে বাংলাদেশ পেয়েছে ১০২৭ ভোট আর বিরোধিতা করে মিয়ানমার পেয়েছে মাত্র ৪৭ ভোট। বুধবার জাতীয় সংসদের গণসংযোগ থেকে পাঠানো এক বিবরণীতে এমন তথ্য জানানো হয়।

জানা গেছে, আইপিইউ সাধারণ সভায় রোহিঙ্গা ইস্যুটি গৃহীত হওয়ায় আন্তর্জাতিক মহলে এর গুরুত্ব বেড়ে গেছে। আন্তর্জাতিক সংস্থা জাতিসংঘের চাইতেও পুরনো আইপিইউ। সংস্থাটি সারাবিশ্বের ১৭৩টি দেশের ৬৫০ কোটি মানুষের প্রতিনিধিত্বশীল সর্ববৃহৎ সংসদীয় ফোরাম। মিয়ানমারের বিরুদ্ধে বিশ্ববাসীর জনমতের প্রতিফলন আইপিইউ সম্মেলনে রোহিঙ্গা ইস্যুটি আলোচনায় আসা।

বাংলাদেশ আইপিইউ-এর সদস্য হওয়ার পর থেকে সংস্থাটির কোন সম্মেলনে ইমারজেন্সি আইটেম হিসেবে আমাদের কোন প্রস্তাবনা গৃহীত হওয়ার ঘটনা এটিই প্রথম। বুধাবার সমাপ্ত হতে যাওয়া আইপিইউ সম্মেলনে ২০ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া।

বাংলাদেশ সংসদীয় দলের সঙ্গে রাশিয়ার সংসদীয় দলের এক দ্বি-পাক্ষিক সভাতেও নেতৃত্ব দেন ফজলে রাব্বি। বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের প্রধান হুইপ আ স ম ফিরোজ এমপিসহ অন্য সাংসদরা। রাশিয়া সংসদীয় দলের পক্ষে নেতৃত্ব দেন রুশ পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের ডেপুটি স্পিকার ইলিয়াস উমা খান।

বাংলাদেশ-রাশিয়া আলোচনায় জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া রাখাইনে জাতিগত নিধনের নির্মমতার চিত্র রাশিয়ার প্রতিনিধি দলের কাছে তুলে ধরেন। এসময় রাশিয়ার ডেপুটি স্পিকার রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে মানবিক সাহায্য সহযোগিতা করার বিষয়ে আশ্বস্ত করেন।

আগৈলঝাড়ায় শেখ রাসেলের জন্মদিনে দোয়া ও মিলাদ

0

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) থেকেঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে বরিশালের আগৈলঝাড়ার আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গতকাল বুধবার সকালে দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগ সমন্বয়ক আবু সালেহ মো. লিটন সেরনিয়াবাতের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আ. রইচ সেরনিয়াবাত, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান ইলিয়াস তালুকদার, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি মো. সাইদুল সরদার, ছাত্রলীগ সভাপতি মিন্টু সেরনিয়াবাত, সাধারণ সম্পাদক জাকির পাইক প্রমুখ। পরে উপজেলা সদরের জামে মসজিদে দোয়া ও মিলাদ অনুষ্ঠিত হয়।
-বিবিএস

আগৈলঝাড়ায় ধর্ষণের অভিযোগ থেকে বাঁচতে ধর্ষিতাকে বিয়ে

0

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল)থেকেঃ বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ধর্ষণের অভিযোগ থেকে বাঁচার জন্য অবশেষে ধর্ষিতাকে বিয়ে করেছে ধর্ষক। সোমবার রাতে ধর্ষণের অভিযোগে আটকের পর মঙ্গলবার দিনভর নানান নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে অবশেষে গভীর রাতে এ বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পশ্চিম গোয়াইল গ্রামের মৃত মজিদ শিকদারের কলেজ পড়–য়া মেয়েকে গৌরনদী উপজেলার উত্তর পালরদী গ্রামের মুকুল মিয়ার ছেলে কলেজ ছাত্র সাদ্দাম মিয়া সোমবার রাতে ধর্ষণ করে বলে ছাত্রী অভিযোগ করেন।
এই অভিযোগের ভিত্তিতে সাদ্দামকে মারধর করে ওই বাড়িতে আটক রাখে।

এ ঘটনা নিয়ে মঙ্গলবার ওই বাড়িতে এবং পরে রাজিহার ইউপি চেয়ারম্যান ইলিয়াস তালুকদারের উপস্থিতিতে এক সালিশ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সালিশ বৈঠকে মেয়ে ও ছেলে পরিবারের লোকজনসহ ইউপি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। পরে গভীর রাতে উভয়পক্ষের সমঝোতায় থানা পুলিশের উপস্থিতিতে বিয়ে সম্পন্ন হয়। বর্তমানে উভয়ে কন্যার পিত্রালয়ে অবস্থান করছে।

-বিবিএম

চিরিরবন্দরে কৃষি প্রণোদনার বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ

0

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুর চিরিরবন্দর উপজেলায় কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচি এর আওতায় গতকাল সোমবার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে সরিষা,গম, ভুট্টা, গ্রীষ্মকালীন মুগডাল,বিটি বেগুনের বীজ ও রাসায়নিক সার বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়।

এই কর্মসূচির আওতায় একজন কৃষক ১ কেজি সরিষার বীজ, ২০ কেজি ডিএপি সার এবং ১০ কেজি এমওপি সার পাচ্ছেন। চিরিরবন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো:গোলাম রব্বানী এ বিতরণ কর্মসুচীর উদ্বোধন করেন।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানাগেছে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচি এর আওতায় চিরিরবন্দর উপজেলায় ০৫ টি ফসলের আবাদের জন্য ৪ হাজার ৩৯৫ জন কৃষক/কৃষাণী এ সুবিধা পাবেন।

তম্মধ্যে ১৬০০ জন কৃষক গম, ১৪২৫ জন কৃষক ভুট্টা, ১১৯০ জন কৃষক সরিষা, ১৭০ জন কৃষক গ্রীষ্মকালীন মুগডাল এবং ১০ জন কৃষক বিটি বেগুনের ফসলের উপর এ সুবিধা পাবেন।

বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অধ্যক্ষ আহসানুল হক মুকুল, মহিলা ভাইচ চেয়ারম্যান তরুবালা রায়,উপজেলা কৃষি অফিসার মো: মাহমুদুল হাসান, ইসবপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু হায়দার লিটন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-সহকারীবৃন্দসহ কৃষক-কষাণীগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় উপজেলা কৃষি অফিসার মো: মাহমুদুল হাসান বলেন, বর্তমান সরকার কৃষিবান্ধব সরকার কৃষকদের এই প্রণোদনা নিঃসন্দেহে কৃষকদের অনুপেরণা যোগাবে। পাশাপাশি বর্ন্যা পরবর্তী সময় এই সার ও বীজ ব্যবহারের মাধ্যমে কৃষকদের আর্থিক ক্ষতি কিছুটা হলেও পুষিয়ে যাবে।

-বিবিএস

খালেদা জিয়ার গাড়ী বহর এয়ারপোর্ট টু গুলশান

0

ঢাকাঃ চিকিৎসার জন্য তিন মাস লন্ডনে অবস্থান শেষে আজ বুধবার বিকালে দেশে ফিরলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বিকেল ৫টা ১০ মিনিটে অ্যামিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে ৫৮৬ ফ্লাইটে তিনি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

এসময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ সিনিয়র নেতারা তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে বরণ করেন।

বিমানবন্দনে আনুষ্ঠানিকতা শেষে তিনি ৫টা ৪৫ মিনিটে যখন সড়কে বের হন তখন হাজার হাজার নেতাকর্মী তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। শ্লোগানে শ্লোগানে মুখর করে তোলে পরিবেশ। মানুষের প্রচণ্ড ভীড়ের কারণে ধীরে ধীরে তার গাড়ি গুলশানের বাসার দিকে এগিয়ে যায়।

বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টা ৫০ মিনিটে লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে রওনা করেন তিনি। সেখানে দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ হাজারও নেতাকর্মী বিদায় জানান খালেদা জিয়াকে।

এদিকে খালেদা জিয়াকে অভ্যর্থনা জানাতে বেলা সাড়ে ৩টা থেকেই বিমানবন্দর এলাকায় অবস্থান নেন দলটির নেতাকর্মীরা। দলের শীর্ষ নেতা থেকে শুরু করে ঢাকা ও এর আশপাশ এলাকার নেতাকর্মীরাও এ অভ্যর্থনায় অংশ নেন।

-বিবিএম

ঢাবির ‘ক’ ও ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

0

ঢাবি প্রতিনিধিঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ‘ক’ ও ‘চ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ‘ক’ ইউনিটে ২৩ দশমিক ৩৭ শতাংশ ও ‘চ’ ইউনিটে ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ পরীক্ষার্থী ভর্তির যোগ্য বিবেচিত হয়েছে।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান আনুষ্ঠানিকভাবে এ ফল ঘোষণা করেন।

‘ক’ ইউনিটের ১৯ হাজার ২৬৭ জনের মধ্যে এক হাজার ৭৬৫ শিক্ষার্থী শেষ পর্যন্ত বিজ্ঞান অনুষদ, জীব বিজ্ঞান অনুষদ ও ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদে ভর্তির সুযোগ পাবে। আর ‘চ’ ইউনিটে ৩০৪ জনের মধ্যে ১৩৫ শিক্ষার্থী চারুকলা অনুষদের আটটি বিভাগে ভর্তি হতে পারবেন।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ডের নাম, পাসের সাল ও মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বরের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে ভর্তি পরীক্ষার ফল জানা যাবে। এছাড়া যে কোনো মোবাইল ফোন থেকে DU<>KA<>Roll এবং DU<>CHA<>Roll টাইপ করে ১৬৩২১ নম্বরে এসএমএস করলে ফিরতি এসএমএসে ফল জানিয়ে দেওয়া হবে।

‘ক’ ইউনিটের শিক্ষার্থীদের ৫ থেকে ১৫ নভেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে ‘চয়েস ফরম’ পূরণ করতে হবে। এছাড়া কোটায় আবেদনকারীদের ২৯ অক্টোবর থেকে ৬ নভেম্বরের মধ্যে ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন অফিস থেকে ফরম নিয়ে তা পূরণ করে জমা দিতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষার ফল পুনর্নিরীক্ষার আবেদন করতে চাইলে ১৯ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবরের মধ্যে ডিন অফিসে যোগাযোগ করতে হবে।

আর ‘চ’ ইউনিটের শিক্ষার্থীদের ২৩ থেকে ৩০ অক্টোবরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে গিয়ে ‘চয়েস ফরম’ পূরণ করতে হবে। কোটায় আবেদনকারীদের একই সময়ের মধ্যে চারুকলা অনুষদের ডিন অফিস থেকে ফরম নিয়ে তা পূরণ করে জমা দিতে বলা হয়েছে।

এ ইউনিটে ফল পুনর্নিরীক্ষার আবেদন করতে হলে ১৯ থেকে ২৬ অক্টোবরের মধ্যে ডিন অফিসে যোগাযোগ করতে হবে।

-বিকে

- Advertisement -

পাঠকপ্রিয়তা