রাজধানীতে চলছে উন্নত ড্রেনেজের কাজ, চলছে অনিয়মও

0
22

ঢাকাঃ জলাবদ্ধতা নিরসনে রাজধানীজুড়ে চলছে আরসিসি ড্রেন নির্মাণের কাজ। দীর্ঘস্থায়ী এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে রাজধানীতে উন্নয়ন কাজের দৃশ্যমান পরিবর্তন হবে বলে মনে করছে দুই সিটি কর্পোরেশন।

আগে ড্রেন নির্মাণ হতো ইট, খোয়া, বালু ও সিমেন্ট দিয়ে। নতুন আরসিসি ড্রেন নির্মাণে ব্যবহৃত হচ্ছে রড, সিমেন্ট, বালু ও পাথর। এর আকারও পুরাতন ড্রেনের চেয়ে দ্বিগুণ।

পুরাতন ড্রেন দিয়ে পানি নিষ্কাশনে বেশি সময় লাগে বলে রাজধানীতে একটু বৃষ্টি হলেই জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। এসব বিষয় বিবেচনা করে দুই সিটি কর্পোরেশন নির্মাণ করছে নতুন ড্রেন। এ ড্রেনের স্থায়ীত্ব অনেক বেশি বলে জানিয়েছে সিটি কর্পোরেশন।

উন্নয়নের এই ধারাবাহিকতা যাতে থেমে না যায় সেদিকে নজর দেয়ার পরামর্শ নগরবাসীর।

রাজধানীর শেওড়া পাড়ার বিভিন্ন শাখা রাস্তার কাজ চলছে। এলাকাবাসী বা বাড়ীর মালিকরা নিজ নিজ বাড়ীর সামনের রাস্তার কাজ নিজে তদারকী করে কাজ করিয়ে নিতে দেখা যাচ্ছে। বেশীরভাগ বাড়ীর মালিকের অভিযোগ যেসব আরসিসি রিং এর সংযোগস্থলে সিমেন্ট দিয়ে সঙযোগ করার দরকার হলেও সেই সংযোগস্থলে কাদা দিয়ে বা মাটি দিয়েই পূরণ করা হচ্ছে। যার ফলে বৃষ্টি হলে পয়ঃনিস্কাষণ সহজ হলেও বৃষ্টির চাপে সেই সংযোগস্থলের কাদা বা মাটি সরে গিয়ে আবারও ড্রেন বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

এদিকে সিটি কর্পোরেশনে অর্ন্তভুক্ত হওয়া মাতুয়াইল, শ্যামপুর, দনিয়া এবং সারুলিয়ায় রাস্তা ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নে সাড়ে ৭’শ কোটি টাকার প্রকল্প নিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি একনেক বৈঠকে প্রকল্পটি অনুমোদন পেয়েছে।

এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ৬৪ উপজেলায় পল্লী সড়কে ১২৮ টি ব্রিজ নির্মাণে প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দসহ আরেকটি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানান, অনুমোদিত ৯টি প্রকল্পে মোট বরাদ্দ ৮ হাজার ৮৭৪ কোটি টাকা।

-বিবিআর

NO COMMENTS